টপ নিউজ নির্বাচিত হকি

নারী হকিতে নড়াইল চ্যাম্পিয়ন

আন্তজেলা ও যুব গেমস চ্যাম্পিয়ন ঝিনাইদহকে ১-০ গোলে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস মহিলা হকির স্বর্ণপদক জিতেছে নড়াইল জেলা দল। আজ শুক্রবার মওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে ফাইনালে দ্বিতীয় কোয়ার্টারে নড়াইলের হয়ে জয়সূচক একমাত্র গোলটি করেন নমিতা কর্মকার। শেষদিকে ঝিনাইদহ বেশ কয়েকটি আক্রমণ করলেও নড়াইলের গোলরক্ষক কাজল বিশ্বাসের দৃঢ়তায় প্রতিহত হয়।

নড়াইলের কোচ ওস্তাদ ফজলু জানান, ‘মেয়েরা আমার স্বপ্নপূরণ করেছে। আমার জীবনে রৌপ্য পদক পেয়েছি এবার মেয়েরা স্বর্ণ উপহার দিয়েছে। টোটালি মেয়েদের খেলা অনেক উন্নতি করেছে। এদেরকে ধরে রাখতে হবে।’

ঝিনাইদহের কোচ জামাল হোসেন বলেন, আমাদের ব্যাডলাক। কয়েকটি সহজ সুযোগ নষ্ট হয়েছে। হাইভোল্টেজ ম্যাচে এমন সুযোগ বারবার আসে না। তারপরও মেয়েরা শেষ পর্যন্ত হাল ছাড়েনি। ওদের স্পিরিট ধরে রাখতে হবে।

ব্রোঞ্জ জিতলো কিশোরগঞ্জ
গেমস নারী হকিতে দিনাজপুর জেলাকে ১-০ গোলে হারিয়ে ব্রোঞ্জপদক জিতেছে কিশোরগঞ্জ। মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে খেলা শুরুর মাত্র দুই মিনিটেই রেশমা আক্তারের ফিল্ডগোলে এগিয়ে যায় কিশোরগঞ্জ জেলা।

এরপর আক্রমণ, পাল্টা আক্রমণ হলেও কিশোরগঞ্জের দখলেই বল বেশি ছিল। দিনাজপুর তিনটি ও কিশোরগঞ্জ ছয়টি পিসি থেকে গোল আদায় করতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত আর কোনো গোল না হলে ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কিশোরগঞ্জ।

দিনাজপুরের অধিনায়ক অর্পিতা পাল হতাশা প্রকাশ করে বলেন, ‘একটা পদক পেলে ভালো হতো। জেলার সুনাম হতো। সবাই অনেক পরিশ্রম করেছি। আগামীতে আরো ভালো করার ইচ্ছে আছে।’

কিশোরগঞ্জের কোচ রিপেল ব্রোঞ্জ জিতে খুশি। বলেন, ‘গোল্ডের ইচ্ছে নিয়ে এসেছি। ব্রোঞ্জ পেয়েও খুশী। পদক কিংবা ট্রফি যত বেশি অর্জন হবে জেলাশহরগুলোতে ততবেশি মেয়েরা ইনভল্ব হবে। জড়তা কাটবে। গেমসের পদক মানে খেলোয়াড়দের জন্য বিশেষ কিছু।’